গরুকে পোল্ট্রি ফিড খাওয়ানো হতে সাবধান

গরুকে পোল্ট্রি ফিড খাওয়ানো হতে সাবধান! সম্প্রতি কিছু গরু মোটাতাজাকরণ খামারীদের মধ্যে গরুকে পোল্ট্রি ফিড খাওয়ানোর খুব বেশী প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। এসকল খামারীরা দ্রুত মোটাতাজা করার জন্য গরুকে পোল্ট্রি ফিড খাওয়াচ্ছে। যা গরুর আদর্শ খাদ্য ব্যবস্থাপনার পরিপন্থি ও মানব দেহের জন্য খতিকর। কিন্তু মুরগির খাদ্য কেন খাওয়ানো যাবে না? কি আছে ব্রয়লার মুরগির খাদ্যে?

ব্রয়লার বা লেয়ার মুরগি হলো একটি উচ্চ ফিড কনভার্শন ক্ষমতার প্রাণি। যাদের থেকে সর্বোচ্চ প্রডাকশন অর্জন করতে খাদ্যে উচ্চ মাত্রায় প্রোটিন ও ফ্যাট সরবরাহ করতে হয়। এই প্রোটিন ও ফ্যাটের উৎস্য ২ টি। প্রাণিজ প্রোটিন ও উদ্ভিজ্য প্রোটিন। মুরগির খাদ্যে শুধু উদ্ভিজ্য প্রোটিন যেমন সয়াবিন মিল, পাম কার্নেল, বিভিন্ন খৈল ব্যবহারে উৎপাদন কমে যায় ও খরচ বৃদ্ধি পায়।

গরুকে পোল্ট্রি ফিড খাওয়ানো

ব্রয়লার বা লেয়ার মুরগি থেকে ভালো উৎপাদন পেতে ৫-১০ ভাগ প্রাণিজ আমিষ বা প্রোটিন ব্যবহার করা জরুরী। প্রাণিজ আমিষের একটি সস্তা উৎস্য হলো মিট এন্ড বোন মিল বা এমবিএম (Meat and Bone Meal /MBM)।

গরুকে পোল্ট্রি ফিড খাওয়ানো

সম্প্রতি আমাদের দেশে রেডি ফিডে মিট এন্ড বোন মিল বা এমবিএম (Meat and Bone Meal /MBM) ব্যাবহারে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। এই এম,বি,এম হচ্ছে প্রাণীজ আমিষ যা প্রাণী বিশেষ করে শুকর ও গরুর মাংস প্রসেসিং করার পর উচ্ছিষ্ট মাংস এবং হাঁড় থেকে তৈরিকৃত। পোল্ট্রি বা ব্রয়লার মুরগীর খাদ্য গরুকে খাওয়ালে খাদ্যে উপস্থিত এম,বি,এম এর কারণে গরুর বোভাইন স্পঞ্জিফরম এন্সেফালোপ্যাথি, সালমোনেলোসিস, বটুলিজম ইত্যাদি রোগ হতে পারে। ছাড়াও গাভী গরুতে ম্যাসটাইটিস বা ওলান প্রদাহ রোগ হতে পারে।

ভেজাল ফিড

পোল্ট্রি বা ব্রয়লার মুরগির ফিডে উচ্চ মাত্রায় এন্টিবায়োটিক, লেড, স্টেরয়েড ইত্যাদিও মেশায় কোন কোন অসাধু ফিড প্রস্তুতকারী কোম্পানি। এই ধরনের পোল্ট্রি ফিড খেয়ে গরু দ্রুত মোটা হয় ঠিকই কিন্তু গরু কিছু জটিল রোগে আক্রান্ত হয়। এতে গরুর প্রাণনাশের আশংকা তৈরী হয়। সাথে সাথে ঐ সমস্ত গরুর মাংস খেয়ে জনস্বাস্থ্যও বিশাল হুমকির মুখে পড়ে।

মিট এন্ড বোন মিল বা এমবিএম
মিট এন্ড বোন মিল বা এমবিএম

তাই বিভিন্ন উপাদানের পুষ্টিগুণ বিচার করে গরুর খামারের খাদ্য নিজেরাই প্রস্তুত করা উচিৎ। সবসময় খামারীদের একটি কথা মনে রাখতে হবে যে গরুকে উদ্ভিজ্জ প্রোটিনই দিতে হবে, প্রাণীজ প্রোটিন নয়। গরুকে সবসময় গরুর খাবারই দিতে হবে পাখি বা মুরগির খাবার নয়।

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!