বায়োপন্ড- জিওলাইট ও প্রোবায়োটিকের কার্যকর সমন্বয়

বায়োপন্ড- জিওলাইট ও প্রোবায়োটিকের কার্যকর সমন্বয়। বায়োপন্ড এসকেএফ কোম্পাণির একটি পুকুর ম্যনেজমেন্ট ও মাছ চাষের প্রোডাক্ট। পুকুর ও অন্যান্য জলাসয়ের জলাশয়ের ক্ষতিকর গ্যাস দূর করতে ও পানির গুণগত মান কৃদ্ধি করতে কার্যকর একটি প্রোডাক্ট। এটি ব্যবহারের ফলে পানির ক্ষতিকর গ্যাস দূর হয় এবং প্লাংকটন এর সুষম বৃদ্ধি নিশ্চিত করে।

বায়োপন্ড প্রোডাক্ট পরিচিতি

প্রোডাক্টের নামবায়োপন্ড
উপাদানজিওলাইট, ও প্রোবায়োটিক
ফরমুলেশনপাউডার
ব্যবহারজলাশয়ের ক্ষতিকর গ্যাস দূর করতে ও পানির গুণগত মান কৃদ্ধি করতে পুকুরের পানিতে,
বায়োফ্লক ট্যাংক, ঘেরে, হাওড়-বাওড়ের পানিতে ব্যবহার করা যেতে পারে।
সতর্কতাব্যবহারের পর দ্রুত প্যাকেটের মুখ বন্ধ করুন। এবং এক মাসের মধ্যে ব্যবহার করুন।
প্যাক সাইজ ২ কেজি
বাজারজাতকারীএসকেএফ ফার্মাসিটিক্যালস লিঃ (এনিমেল হেল্থ্য ডিভিশন)
দাম (খুচরা মূল্য)— টাকা

কার্যকারীতা

  1. পুকুরের তলদেশে ক্ষতিকর গ্যাস ও দুর্গন্ধ দূর করে এবং জৈব বর্জ্য শোধন করে দূষণমুক্ত রাখে।
  2. মাটি ও পানির পিএইচ এর ভারসাম্য রক্ষা করে।
  3. মিনারেল সমৃদ্ধ হওয়ায় মাছ ও চিংড়ির দৈহিক বৃদ্ধি ঘটায়।
  4. পানির গন্ধ দূর করে এবং প্লাংকটন এর সুষম বৃদ্ধি নিশ্চিত করে।
  5. নিয়মিত ব্যবহারে মাছের টক ও চিংড়ির খোলস উজ্জ্বল এবং আকর্ষনীয় করে।
  6. সাধারণ জিওলাইট এর মত জলের তলায় পড়ে না।
  7. প্রোবায়োটিক সমৃদ্ধ হওয়া সাধারণ জিওলাইট এর তুলনায় অধিক কার্যকর এবং সাশ্রয়ী।

বায়োপন্ড ব্যবহারের নিয়ম

প্রতি একর বা ১০০ শতাংশ জলাকার ও ৩-৪ ফুট পানির গভীরতার জন্য।

জলজ প্রজাতিপুকুর প্রস্তুতিতে
(পানি থাকা অবস্থায়)
চাষকালীন সময়সময়কাল
মাছ২-৩ কেজি১-১.৫ কেজি১৫-২০ দিন অন্তর
গলদা চিংড়ি২-৩ কেজি ১-২ কেজি১৫-২০ দিন অন্তর
বাগদা চিংড়ি২-৩ কেজি ১-২ কেজি ১৫-২০ দিন অন্তর

শেষ কথা

মাছ চাষে বায়োপন্ড প্রোডাক্টের রিভিউ পোস্টে এটায় বলবো এটি একটি বহুল ব্যবহৃত প্রোবায়টিক সমৃদ্ধ জিওলাইট। এটি জিওলাইটের কাজ ছাড়াও প্রোবায়টিক এর কাজ করে যা পানিকে মাছ চাষের উপযোগী করে তোলে।

আরো পড়ুন- মাছ ও চিংড়ি চাষে প্রোবায়োটিক এর ব্যবহার

Leave a Comment

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!