মুরগির ভাইরাস জনিত রোগ

মুরগির ভাইরাস জনিত রোগ সমূহ মুরগি পালন খামারের জন্য অতি গুরুত্বপর্ণ বিষয়। মুরগির ভাইরাস জনিত রোগ থেকে খামারকে মুক্ত রাখতে সঠিক সময়ে প্রতিশধক টিকা প্রদান করতে হয়। মুরগির ভাইরাস জনিত রোগে মৃত্যুর হার অনেক বেশি থাকে।

মুরগির ঝিমানো রোগের ঔষধ গুলো কি কি?

মুরগির ঝিমানো রোগের ঔষধ

মুরগির ঝিমানো রোগের ঔষধ সম্পর্কে বুঝতে হলে মুরগির ঝিমানো রোগ সম্পর্কে আগে জানতে হবে। মজার বিষয় হলো মুরগির ঝিমানো রোগে নামে মুরগির কোনো রোগই আসলে নেই। এটি রোগের একটি উপসর্গ মাত্র। যে কোনো রোগেই মুরগি ঝিমাতে পারে। রানিক্ষেত, গামরোরো, এভিয়ান ইনফ্লুয়েন্জা, কক্সিডিওসিস (আমাশয়), মাইকোপ্লাজমা (ঠান্ড)) ইত্যাদি রোগে মুরগি ঝিমাতে পারে। মুরগির খামরিদের জন্য একটি বই […]

মুরগির ঝিমানো রোগের ঔষধ গুলো কি কি? Read More »

মুরগির ইনফেকশাস ব্রংকাইটিস (Infectious Bronchitis)- শ্বসনতন্ত্রের সংক্রামক রোগ

মুরগির ইনফেকশাস ব্রংকাইটিস (Infectious Bronchitis)- শ্বসনতন্ত্রের সংক্রামক রোগ

 ইনফেকশাস  ব্রংকাইটিস (infectious bronchitis in chickens)। ইনফেকশাস  ব্রংকাইটিস মোরগ-মুরগির শ্বসনতন্ত্রের একটি মারাত্মক সংক্রামক রোগ।  ভাইরাস থেকে এই রোগ সৃষ্টি হয়।  সব বয়সের মোরগ-মুরগি এই রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে তবে বয়স্ক মুরগি অপেক্ষা বাচ্চা মুরগির বেশি আক্রান্ত হয়। সংক্রামক ব্রঙ্কাইটিস একটি এভিয়ান করোনভাইরাস দ্বারা সৃষ্ট রোগ। এটি একটি ফ্যাট ইনভল্ব আরএনএ ভাইরাস। ভাইরাসের আবরণের পৃষ্ঠে বৈশিষ্ট্যযুক্ত

মুরগির ইনফেকশাস ব্রংকাইটিস (Infectious Bronchitis)- শ্বসনতন্ত্রের সংক্রামক রোগ Read More »

মুরগির সোলন হেড সিনড্রোম (Swollen Head Syndrome) রোগ

মুরগির সোলন হেড সিনড্রোম (Swollen Head Syndrome) রোগ

মুরগির সোলন হেড সিনড্রোম (Swollen Head Syndrome)। এটি নিউমো ভাইরাস দিয়ে সৃষ্ট রোগ। ফোলা হেড সিন্ড্রোম (এসএইচএস) হ’ল ব্রয়লার এবং ব্রয়লার ব্রিডারগুলিতে একটি জটিল সংক্রমণ, যেখানে প্রাথমত দায়ি এভিয়ান নিউমোভাইরাস (এপিভি) এবং দ্বিতীয়ত দায়ি ই কোলি ব্যকটেরিয়া। এটি শ্বাসকষ্ট এবং স্নায়বিক লক্ষণ দ্বারা চিহ্নিত করা হয়। ব্রয়লার মুরগীতে, সোলন হেড সিনড্রোম সাধারণত চতুর্থ সপ্তাহ পরে দেখা

মুরগির সোলন হেড সিনড্রোম (Swollen Head Syndrome) রোগ Read More »

মুরগির এগ ড্রপ সিনড্রোম (Egg Drop Syndrome) বা ইডিএস

মুরগির এগ ড্রপ সিনড্রোম (Egg Drop Syndrome) বা ইডিএস

মুরগির এগ ড্রপ সিনড্রোম (Egg Drop Syndrome) বা ইডিএস। এটি এভিয়ান এডিনো ভাইরাস  দিয়ে  সৃষ্ট এপ্রকার ভাইরাস রোগ হাজার 976 সালে সর্বপ্রথম এই রোগের প্রাদুর্ভাব ঘটে।  পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই এই রোগ দেখা যায়। ডিম পাড়া মুরগি তে এই রোগ দেখা দেয়। সাধারণত হাঁস রাজহাঁস এগ ড্রপ সিনড্রোম (EDS) রোগে আক্রান্ত হয় না। তবে এসকল

মুরগির এগ ড্রপ সিনড্রোম (Egg Drop Syndrome) বা ইডিএস Read More »

পোলিট্র তে লিম্ফয়েড লিউকোসিস ডিজিস (Avian Leukosis)

পোলিট্র তে লিম্ফয়েড লিউকোসিস ডিজিস (Avian Leukosis)

লিম্ফয়েড লিউকোসিস কমপ্লেক্স (Lymphoid Leukosis Complex) রোগটি সাধারণতঃ ভাইরাস দিয়ে সৃষ্ট।  অতএব চার মাস বয়স থেকে যেকোনো বয়সের মুরগিতে এই রোগ হতে দেখা যায়। লিম্ফয়েড লিউকোসিস রোগ মূলত অ্যাভিয়ান লিউকোসিস ভাইরাসজনিত হাঁস-মুরগির একটি নিউওপ্লাস্টিক রোগ। এই রোগটি বি-সেল লিম্ফোমা দ্বারা চিহ্নিত, প্রায় 16 সপ্তাহ বা তার বেশি বয়সী মুরগীতে দেখা দেয়। রোগ নির্ণয়ের জন্য ব্যবহৃত

পোলিট্র তে লিম্ফয়েড লিউকোসিস ডিজিস (Avian Leukosis) Read More »

মুরগির মারেক্স রোগ

ব্রয়লার মুরগি

মুরগির মারেক্স রোগ হারপিস ভাইরাস নামক এক প্রকার জীবাণু থেকে সৃষ্টি হয়। পূর্বে বাংলাদেশে এ রোগটি ছিলো না। এ রোগ ফাউল প্যারালাইসিসও নামেও পরিচিত হয়ে থাকে। বিশ্বের বহু দেশেই এ রোগ হয়ে থাকে। আমাদের দেশেও এ রোগ হয়ে থাকে। ধারনা করা হয় যে ১৯৯০ এর দশকে বিদেশী মুরগির মাধ্যমে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। এই রোগটি বিদেশী জাতের ব্রয়লার

মুরগির মারেক্স রোগ Read More »