ভারতে দুর্গাপূজায় বাংলাদেশের উপহার ২০৮০ টন ইলিশ মাছ

আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ২০৮০ টন ইলিশ রপ্তানির অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। চলতি বছরের ১০ অক্টোবরের মধ্যে ৫২টি রপ্তানীকারক প্রতিষ্ঠানকে ৪০ টন করে মোট ২ হাজার ৮০ টন ইলিশ রপ্তানি করবেন বলে গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছে। ২০ সেপ্টেম্বর বানিজ্য মন্ত্রণালয়ের রপ্তানি-২ শাখার এক চিঠিতে এ অনুমতি দেওয়া হয়।

ইলিশ মাছ
ইলিশ মাছ

ভারতের কলকাতার ব্যববসায়ীদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এই ইলিশ মাছ দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়। তবে এবছর অতীতের সকল রেকর্ড ভেঙ্গে সবচেয়ে বেশি পরিমানে ইলিশ এবার বাংলাদেশ রপ্তানী করবে। ৯০০ টাকা দরে হিসাব করলে ইলিশের মোট দাম আসে ১৮৭ কোটি ২০ লাখ টাকা।

যশোর জেলার বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে এই ইলিশ ভারতের কোলকাতার ব্যববসায়ীদের কাছে পৌছে যাবে। তবে প্রকৃত মৎস্য ব্যবসায়ীরা রপ্তানির অনুমোদন না পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

বানিজ্য মন্ত্রনালয়ের উপসচিব তানিয়া ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, ”দুর্গাপূজা উপলক্ষে ভারতে ২০৮০ টন ইলিশ রপ্তানির অনুমোদন দিয়েছে সরকার। ৫২ জন রপ্তানিকারক ৪০ টন করে ইলিশ রপ্তানির সুযোগ পাবেন। কোনো ব্যবসায়ী অনুমোদিত পরিমাণের চেয়ে বেশি রপ্তানি করতে পারবেন না”।

বাংলাদেশে ইলিশের ব্যপক চাহিদা থাকায় ইলিশ রপ্তানিতে সরকার নিশেধাক্গা জারি করে। তবে গত কয়েক বছর ধরে দেশের ব্যবসায়ীদের আবেদনের প্রেক্ষিতে ভারতে ইলিশ মাছ রপ্তানির অনুমোদন দিয়ে আসছে সরকার। বিগত ২০২০ সালেও ভারতে ১ হাজার ৪৫০ টন ইলিশ রপ্তানির অনুমোদন দিয়েছিল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

বিশ্বের মোট উৎপাদিত ইলিশের ৮৬ শতাংশই বাংলাদেশে উৎপাদিত হয়। বিশেষ করে মেঘনা ও পদ্মায়। বর্ষার শেষে ধরা পড়া ইলিশ খুবই সুস্বাদু হয়ে থাকে। ভারতের পশ্চিমবঙ্গে আমাদের ইলিশের কদর সবসময় বেশি।

আরো পড়ুন- মাল্টি কালার টেবিল চিকেন (এমসিটিসি)- দেশে নতুন জাতের মুরগি

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!