মুরগির এন্টিবায়োটিক ঔষধের নাম গুলো জেনে নিন।

মুরগির এন্টিবায়োটিক ঔষধের নাম গুলো অবশ্যই মুরগি পালন খামারিদের জানা থাকা প্রয়োজন। এর বাইরে মুরগির এন্টিবায়োটিক ঔষধ গুলোর ব্যবহার জানা থাকলে সেটা অবশ্যই ভালো বলেই বিবেচিত হবে। তবে রেজিস্টার্ড ভেটেরিনারি চিকিৎশকের পরামর্শ বা নির্দেশনা ছাড়া কোনো ভাবেই মুরগি কে এন্টিবায়োটিক ঔষধ খাওয়ানো উচিৎ নয়।

মুরগির এন্টিবায়োটিক ঔষধের নাম ও ব্যবহার

মুরগির বিভিন্ন প্রকার ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া জনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকে। ব্যাকটেরিয়া জনিত রোগের চিকিৎসায় ও ভাইরাস জনিত রোগে দ্বিতীয় পরর্যায়ের ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমন প্রতিরোধে এসকল এন্টিবায়োটিক ঔষধ ব্যবহার করা হয়।

  1. গ্রাম নেগেটিভ অর্গানিজমঃ ই কলাই,সাল্মোনেলা,কলেরা(পাস্টরেলা মাল্টোশিডা,এভিব্যাক্টেরিয়াম প্যারাগ্যালিনেরাম(করাইজা)
  2. গ্রাম পজিটিভ অর্গানিজমঃ ক্লোস্টিডিয়াম( এন্টারাইটিস),স্টেফাইলোকক্কাস,স্টেপ্টোকক্কাস
  3. এনরোফক্সাসিলিন,লেভো,সিপ্রোফক্সাসিলিন গ্রাম পজিটিভ,নেগেটিভ ও মাইকোপ্লজমার বিরুদ্ধে কাজ করে।
  4. নরফক্সাসিলিন গ্রাম নেগেটিভ ও গ্রাম পজিটিভ অর্গানিজম এর বিরুদ্ধে কাজ করে।
  5. টিয়ামোলিন,টালোসিন,টিল্কোসিন,এজথ্রোমাইসিন,এরাইথ্রোমাইসিন: মাইকোপ্লাজমা ও গ্রাম পজিটিভ কিছু ব্যাক্টেরিয়া্র বিরুদ্ধা কাজ করে। রেস্পিরেটরী সিস্টেমে কাজ করে তবে কিছু পরিপাক নালীতে কাজ করে। মেইনলি মাইকোপ্লাজমার জন্য দেয়া হয়।
  6. টিলভালোসিন মাইকোপ্লাজমা ও ক্সোস্টিডিয়ামের বিরুদ্ধা কাজ করে। রেস্পিরেটরী ও পরিপাক নালীতে কাজ করে।
  7. টেট্রাসাইক্লিন, ডক্সিসাইক্লিন মাইকোপ্লজমার বিরুদ্ধে রেপিরেটরী সিস্টেমে কাজ করে।
  8. অক্সিটেট্রাসাইক্লিনঃকক্সি,মাইকোপ্লাজমা,গ্রাম পজিটিভ ও নেগেটিভ এর বিরুদ্ধে রেস্পিরেটরী সিস্টেমে কাজ করে। অল্প সমস্যা ও প্রিভেন্টিভে দেয়া হয়।
  9. সি টি সি গ্রাম পজিটিভ ও গ্রাম নেভেটিভ অর্গানিজমের জন্য অল্প সমস্যায় প্রিভেন্টিভ হিসবে দেয়া হয়। সাল্মোনেলার বিরুদ্ধে ডাইজেস্টিভ সিস্টেমে কাজ করে।
  10. এম্পোলিয়াম,সালফাক্লোজিন,টল্টাজুরিল পরিপাক নালীতে কাজ করে।
  11. সাল্ফাক্লোজিন কক্সির পাশাপাশি সাল্মোনেলা ও কলেরার বিরুদ্ধে কাজ করে।
  12. এম্পোলিয়াম ও টল্টাজুরিল শুধু কক্সির জন্য কাজ করে তাই সাথে সেকেন্ডারী অর্গানিজম(ক্লোস্টিডিয়াম) এর জন্য এমোক্সিসিলিন,এনরো বা সিপ্রো বা অক্সিটেট্রা দেয়া যায়।
  13. জেন্টামাইসিন গ্রাম নেগেটিভ অর্গানিজেমের বিরুদ্ধে কাজ করে তবে মাইকোপ্লজামার বিরুদ্ধেও কিছু কাজ করে।
  14. নিওমাইসিন গ্রাম নেগেটিভ জীবাণূর বিরুদ্ধে কাজ করে পরিপাকনালীতে।
  15. এমোক্সিসিলিন ও এম্পিসিলিন ডাইজেস্টিভ ও রেস্পিরেটরী ও ইউরিনারী সিস্টেমে কাজ করে গ্রাম নেগেটিভ ও গ্রাম পজিটিভ অর্গানিজমের বিরুদ্ধে কাজ করে। বাচ্চা মুরগির ইকলাই/নাভি কাচা,এয়ারস্যাক ইনফেকশনের জন্য দেয়া হয়। তবে পেনিসিলিন জি/প্রপেইন পেনিসিলিন গ্রাম পজিটিভ অর্গানিজমের বিরুদ্ধে কাজ করে।
  16. সেফালোস্পোরিন: গ্রাম পজিটিভ ও গ্রাম নেগেটিভ অর্গানিজমের বিরুধে কাজ করে ইউরিনারী সিস্টেমে ও স্ফট টিস্যতে।।
  17. সালফার ড্রাগ: গ্রাম নেগেটিভ ও গ্রাম্পজিটিভ জীবাণুর বিরুদ্ধে কাজ করে ইউরিনারী, অন্য এন্টিবায়োটিক দেয়া শেষ হয়ে গেলে তখন দেয়া হয়। করাইজাতে সাল্ফার ড্রাগ বেশি ভাল কাজ করে।
  18. ফ্লোরফেনিকল: গ্রাম নেগেটিভ অর্গানিজম ও মাইকোপ্লজমার বিরুদ্ধে কাজ করে পরিপাক ও রেস্পিরেটরী সিস্টেমে কাজ করে। সাল্মোনেলা ও ইক্লাই এর জন্য ভাল কাজ করে। ইন্টাসেলোলারে কাজ কাজ করে তাই ইফিকেসি বেশি হয়।
  19. লিংকোমাইসিন/ক্লিন্ডামাইসিন: পরিপাক নালীতে ক্লোস্টডিয়মারের বিরুদ্ধে কাজ করে।নেক্রোটিক এন্টারাইটিস এর জন্য নরনালী দেয়া হয়।
  20. কলিস্টিন: গ্রাম নেগেটিভ অর্গানিজমের বিরুদ্ধে পরিপাকনালীতে কাজ করে। গ্রাম নেগেটিভ অর্গানিজমের বিরুদ্ধে ভাল কাজ করে। গাট এক্টিভ এন্টিবায়োটিক।
  21. ব্যাসিট্রাসিন: গ্রাম পজিটিভ অর্গানিজমের বিরুদ্ধে (ক্লোস্টিডিয়াম) পরিপাক নালীতে কাজ করে।
  22. গ্লাইকোপেপ্টাইপ( ভ্যাঙ্কোমাইসিন) গ্রাম পজিটীভ অর্গানিজমের বিরুদ্ধে কাজ করে।

মুরগির বিভিন্ন প্রকার রোগে এন্টিবায়োটিক এর ব্যবহার

সালমোনেলা,কলিব্যাসিলোসিস

Florfenicol/ Colistin /Neomycin/ Gentamicin. ৫দিন। এমন কি সিপ্রো।এনরো বা লেভো বা পিফকাসসিলিন দেয়া যায়। টাইফয়েডের ক্ষেত্রে জেন্টামাইসিন ইঞ্জেকশন 0.2ml ডিম পাড়া লেয়ারের জন্য ৩-৪দিন (১ম ১২ঘন্টা পর ২য় ডোজ পরবর্তীতে ১দিন পর পর )।

নাভিকাচা

এয়ারস্যাক,ইয়ক স্যাকে এন্টিবায়োটিক কাজ করে না তাই এন্টিবায়োটিক দিলেই কাজ করবে এমন না। তবু আমরা এমোক্সিসিলিন,ফ্লোরফেনিকল বা কসুমিক্স প্লাস দিতে পারি ৪-৫দিন।

টাইফয়েড

এটা প্রডাকশনের লেয়ারে বেশি হয়,এটা হলে প্রাথমিক স্টেজে হলে ফ্লোরফেনিকল বা জেন্টা বা কম্বাইন্ড বা লেভো/এনরো ৫-৭দিলে ভাল হয়ে যাবে কিন্তু দেরীতে হলে জেন্টা বা রেনামাইসিন এল এ ইঞ্জেকশন লাগবে।

নেক্রোটিক এন্টারাইটিস

Lincomycin/Amoxicillin (combined with clavulanic acid (Augment,S K F Company)/ Cephalexin. Zinc Bcitracin(Acilin). এমন কি এনরোর সাথে এসিলিন দেয়া যায়। ৪-৫দিন।

কলেরা

Levofloxacin(লেভোলসিন,এসিলেভো) /Gentamicin(জেন্টাব্যাক, Florfenicol(কলিফ্লোর,সুপারফ্লো, Sulfadiazine+Trimethoprim (combined preparation)(মাইক্রোনিড), Norfloxacin(নরভেট) ৭দিন। ৭দিন পর রেনামাইসিন ৫দিন। মর্টালিটি বেশি হলে জেন্টা বা রেনামাইসিন এল এ ইঞ্জেকশনই সবচেয়ে ভাল ডিম পাড়া লেয়ারে ০.5 ml রেনামাইসিন ২দিন পর পর মাংসে ৩বার (0.2ml Genta ৩-৪দিন মাংসে)।

করাইজা

ভাল হতে ২-৪ সপ্তা লাগে। Sulfa drugs(কসুমিক্স প্লাস,এটিভেট,সাল্প্রিম,রেনাট্রিম ৫-৬দিন। Tetracyclines (Doxycycline, CTC, OTC) ৫-৭দিন, কসুমিক্স প্লাস আড়াই গ্রাম /লিটারে ৫দিন ২বেলা।সমস্যা দেখা দিলে আবার ৩দিন।

মাইকোপ্লাজমোসিস

Tiamulin(ডেনাগার্ড,রেনাগার্ড,টিয়াভেট,মাইকোগার্ড,মেগাগার্ড) (প্রডাকশনের লেয়ারে)+ Tetracycline. Erythromycin+ Sulphadiazine+Trimethoprim(combined pre.(মাইক্রোনিড,ইরাইভেট,ফিরম্যাক প্লাস). Tylosin + Tetracycline (usually Doxycycline)
Tilmicosin(এভটিল,টিকোসিন,টিল্মিসিন + Tetracycline, Tylvalosin(টিল্ভাসিন,টিল্ভাভেট) ৩-৫দিন।

সি সি আর ডি

Florfenicol(কলিফ্লোর,সুপার ফ্লো+Neomycin Colistin(লিস্টিন ভেট)+ Tetracycline, Levo, enro(ট্রেড নাম লেভোক্সিন,এসিলেভো,লিওভেট,লেভোব্যাক)
Micronid/Firmac plus ৪-৫দিন।

রানিক্ষেত, এ আই( এইচ৯)

Quinolones (levofloxacin, Norfloxacin etc.) + Neomycin/Colistin/Gentamicin, Cipro(সিপ্রো ২০,সিপ্রিল,সিপ্রোসিন) ৫-৬দিন। তারপর নিচের এন্টিবায়োটিক প্রয়োজন হলে ৪-৫দিন। Sulfa drugs(সুপারমেড টি এস,মিরামিড) Florfenicol alone or with neomycin/colistin/gentamicin
৫-৭দিন। খাবার কম খেলে বা মর্টালিটি বেশি হলে অক্সিটেট্রাসাইক্লিন এল এ ইঞ্জেকশন প্রডাকশন লেয়ারে ০.5মিলি করে ৩বার ২দিন পর পর মাংসে।

রানিক্ষেত

রানিক্ষেতের ধরণের উপর ভিত্তি করে চিকিৎসা হবে। ভেলোজেনিক হলে আর ডি বি টিকা দিতে হবে। লেন্টোজেনিক রানিক্ষেত হলে ্লাসোটা/ক্লোন টিকা দিতে হবে। রোলিং ইনফেক্সন(টাইটারের ইউনফর্মিটি খারাপ হলে) ক্লোন টিকা দিয়ে কিল্ড টিকা, টাইটার বেশি হলে কিল্ড টিকা।

গামবোরো

নরমালি ৪-৫দিনেই ভাল হয়ে সেকেন্ডারী ইনফেকশনের জন্য এক্তা এক্টা এন্টিবায়োটিক দেয়া যায়। Quinolones (levofloxacin,Ciprofloxacin, Norfloxacin etc.) Florfenicol alone. জেন্টা বা সালফার ড্রাগ না দেয়াই ভাল।

ব্রংকাইটিস

আই বি ভাল হতে ১-২ মাস লাগে তাই সময় পার করতে হবে। শুধু নরমাল সাপোর্টিভ চিকিৎসা দিলেই হবে।
Quinolones/Tetracyclines/Macrolids. জেন্টা বা সালফার ড্রাগ না দেয়াই ভাল।

মেরেক্স,লিউকোসিস

কোন চিকিৎসা নাই তবে খামারিদের জন্য রিফেন্স,এলিকম,কালোজিরা লিভার টনিক,কিডনি টনিক ধারাবাহিকভাবে ১-২ মাস দেয়া যায়।
জেন্টা বা সালফার ড্রাগ না আদেয়াই ভাল।

পক্স

পক্স ভাল হতে ১৫-৩০দিন লাগে তাই নরমাল চিকিৎসা দিয়ে সময় পাড় করতে হবে
Sulpha drugs
Cipro.levo,Enro
Amoxycillin
৫-৬দিন ।
তারপর সি ও এডিই ৪-৫দিন
জি ডি(গ্রেংগ্রেনাস ডার্মাটাইটিস)
Cipro,Enro,Amoxycillin

গাউট

চিকিৎসায় ভাল রিজাল্ট পাওয়া যায় না।খামারীদের চিকিৎসা করতে হবে
খাবার ৩-৪ ঘন্টা বন্ধ রাখতে হবে
টক্সিন বাইন্ডার, ভিনেগার।
৪-৫দিন দিয়ে পরে নিচের গুলো ৩-৫দিন দিলে এমনিতেই ভাল হয়ে যাবে।
এলোরল ১মিলি ১লিটারে ৩-৪দিন
এডিই দেয়া যায় ৩-৪দিন
এন্টিবায়োটিক দেয়ার দরকার নাই কলিব্যাসিলোসিস হলে এমোক্সিসিলিন বা সেফালেক্সিন ৪-৫দিন দেইয়া যায়।

এসাইটিস

চিকিৎসায় কাজ হবে না তবে খামারোদের চিকিৎসা দিতে হয়।
এন্টিবায়োটিক দেয়ার দরকার নাই তবে কলিব্যাসিলোসিস হলে সেফালেক্সিন বা এমোক্সিসিন ৪-৫দিন
তারপর
ইসেল
নেফ্রোকেয়ার
৪-৫দিন।

ফ্যাটি লিভার

টক্সল
ক্লোলিন ক্লোরাইড
৪-৫দিন
তারপর নিচের গুলো ৪_৫দিন
লিভার টনিক
ই সেল
কে

মাইকোটক্সিন

টক্সিন বাইন্ডার
লিভারটনিক
৫-৬দিন
তারপর নিচের গুলো ৪-৬দিন
ভিটামিন মিনারেলস
নিউট্রিল্যাক

ব্রুডার নিউমোনিয়া

টাইলোসিন +নিওমাইসিন বা এমোক্সিসিন (রেনামক্স) বা এনরোসিন, তুতে, টক্সিন বাইন্ডার( টু প্লাস বা অরিগো প্লাস)।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *