দ্রুত বর্ধণশীল ষাড় চেনার 14 টি উপায়

দ্রুত বর্ধণশীল ষাড় চেনার 14 টি উপায়। দ্রুত বর্ধণশীল ষাড় চেনার উপায় বা বৈশিষ্ট্য গুলো কি কি? কি কি বৈশিষ্ট্য থাকলে বুঝবেন যে ষাড় দ্রুত বর্ধণশীল বা ভালো। গরু মোটাতাজাকরণের জন্য ভালো ষাড় গরু চেনার উপায় বা বৈশিষ্ট্য গুলো নিম্নে আলোকপাত করা হলো। খামারে দ্রুত বর্ধণশীল ষাড় আনুন আর খামারকে লাভজনক হিসাবে গড়ে তুলুন।

দ্রুত বর্ধণশীল জাত

দ্রুত বর্ধণশীল ষাড়

গরু মোটাতাজাকরণের জন্য দ্রুত বর্ধণশীল ষাঁড়ের বিকল্প নেই। এখন এই ষাঁড় কোন গুলো। আমাদের দেশে বর্তমান সময়ে কৃত্রিম প্রজননের সুবাদে প্রচুর উন্নত সংকর জাতের বাছুর উৎপাদন হচ্ছে যা বাছুর পালন খামারে মোটাতাজাকরণের জন্য তৈরী হচ্ছে।

এসকল সংকর জাতের মধ্যে শাহীওয়াল, ব্রাহমা, গির ইত্যাদি জাত কে প্রাধান্য দিতে হবে। ফ্রিজিয়ান জাতও দ্রুত বর্ধনশীল তবে এই জাতের খামার ব্যবস্থাপনা একটু কঠিন।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও অন্যান্য জাতের তুলনায় কম। কোরবানির হাটে নেওয়ার ধকল অনেক সময় সয্য করতে পারে না।

দ্রুত বর্ধণশীল ষাড়ের বৈশিষ্ট্য

  1. গরুটির পূর্ব বংশ ভাল হতে হবে।
  2. মাথা ও গলা খাটো এবং চওড়া হতে হবে।
  3. কপাল প্রশস্থ হওয়া আবশ্যক।
  4. গায়ের চামড়া ঢিলে ঢালা হওয়া উচিৎ।
  5. কাধ খুব পুরু ও মসৃন হওয়া উচিৎ।
  6. পিঠ চ্যাপ্টা, অনেকটা সমতল।
  7. কোমরের দুই পার্শ্ব প্রশস্থ ও পুরু।
  8. বুক প্রশস্থ ও বিস্তৃত হতে হবে।
  9. শরীরে হাড়ের আকার মোটা হতে হবে।
  10.  সামনের পা দুটো খাটো ও শক্ত সামর্থ হতে হবে।
  11.  শিং মোটা ও খাটো হওয়া আবশ্যক।
  12.  লেজ খাটো থাকতে হবে।
  13.  সাধারণভাবে প্রাণিটি শারীরিক ভাবে রোগ মুক্ত ও সুস্থ্য হতে হবে।
  14.  অস্বাভাবিক ভাবে দাঁড়ানো অবস্থায় প্রাণিটিকে একটি আয়তক্ষেত্রের মত হতে হবে।

ষাড় গরু দ্রুত বেড়ে ওঠার সময়

ষাঁড় গরুর দ্রুত বেড়ে ওঠার সময়ে ক্রয় করতে হবে। যে সময়ে গরুর শারীরিক বৃদ্ধি বেশি হয় সেই সময়ে মোটাতাজাকরণ করলে উৎপাদন খরচ কম পরবে ও উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে। উন্নত সংকর জাতের গরুর বেলায় দেড় থেকে দুই বছরের গরুর গ্রোথ বেশি থাকে। দেশি গরুর ক্ষেত্রে এক বছর থেকে দেড় বছরের গরু কিনতে হবে। এক দাতের গরু মোটাতাজাকরণের জন্য সবচেয়ে উপযোগী।

দ্রুত বর্ধণশীল ষাঁরের খাদ্য

দ্রুত বর্ধনশীল ষাড়ের খাদ্য ব্যবস্থাপনা ভালো করতে হবে। পর্যাপ্ত আলো ও বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা আছে এমন পরিবেশে রেখে উচ্চ প্রোটিন যুক্ত খাদ্য সরবোরাহ করলে অবশ্যই খামার থেকে ভালো পরিমান মুনাফা আয় করা সম্ভব। তবে গরু মোটাতাজাকরণ খাদ্য তৈরী করতে খাদ্যের মান ও খাদ্যের দাম বিবেচনায় রাখতে হবে।

গরু মোটাতাজাকরণ করতে ভালোজাতের অর্থাৎ দ্রুত বর্ধণশীল জাতের গরু কিনতে হবে। তবে খেয়াল রাখতে হবে যে, ভালো জাতের গরু কিনতে যেন উচ্চ মূল্য দিতে না হয়।

কম টাকার মধ্যেই ভালো জাতের গরু কিনতে হবে।

রিলেটেড পোস্ট

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!