ব্রয়লার মুরগির ঘর তৈরির বিভিন্ন দিক

ব্রয়লার মুরগির ঘর তৈরির বিভিন্ন দিক। ব্রয়লার মুরগির পালন ঘর এমন ভাবে তৈরি করতে হবে যাতে মুরগিগুলো সারা বছর পরিষ্কার, শুস্ক এবং আরামদায়ক পরিবেশে সম্পূর্ণ আবদ্ধ অবস্থায় থাকতে পারে। ব্রয়লার মুরগির ঘরটি পাকা, আধাপাকা ও বাঁশ, কাঠ, ছন, খড় ইত্যাদি স্থানীয় সামগ্রি দিয়ে তৈরী করা যেতে পারে।

ঘরটি যেভাবেই তৈরি করা হোক না কেন লক্ষ্য রাখতে হবে যে, ঘরে যাতে পানি প্রবেশ না করে, আলো ও বাতাস উত্তম রূপে চলাচল করতে পারে, ঘর যাতে মুরগির জন্য আরামদায়ক হয় এবং অত্যাধিক ব্যায়বহুল না হয়।

অস্থায়ী বা কাঁচা ঘর যা ছন, কড়, তালপাতা, গোলপাতা, বাঁশ ইত্যাদি দিয়ে তৈরি করা যেতে পারে। স্থায়ী ব্রয়লার পালন ঘর তৈরির জন্য টিন ও এসবেসটরও ব্যবহার করা যায়। টিনের শেড তৈরি করলে অধিক তাপ প্রতিরোধের জন্য চালের নিচে বাঁশের চাটাই বা হার্ডবোর্ড দেওয়া উচিৎ।

ব্রয়লার মুরগির ঘর তৈরি

ব্রয়লার মুরগির ঘর তৈরি

ব্রয়লার মুরগির ঘর তৈরি করার সময় মুরগির ঘরের উচ্চতা ১.৫২ মিটার মিনিমাম রাখা উচিৎ। যেহেতু ব্রয়লার মুরগির ঘরে প্রচুর আলো ও বাতাস চলাচলের প্রয়োজন হয় সেহেতু মেঝে থেকে উপর পর্যন্ত তারজালের বেড়া দেওয়া উচিত। খামারের সঠিক তাপমাত্রা ও ঝড় ঝাপটা থেকে মুক্ত রাখার জন্য চট, ত্রিপল বা কাপরের পর্দা দেওযা প্রয়োজন। প্রয়োজন অনুযায়ী এই পর্দা তুলেরাখা যায়।

ব্রয়লার মুরগির ঘরের মেঝের মাপ

ব্রয়লার মুরগির ঘর তৈরি করতে মেঝে পাঁকা রাখা উচিত। কাঁচা মেঝেতেও ব্রয়লার পালন করা যায়। তবে কাঁচা মেঝে থেকে ককসিডিওসিস সহ অন্যান্য জীবাণুর সংক্রমণের সম্ভাবনা অনেক বেশি। ইঁদুরের উপদ্রব থাক বা না থাক কাঁচা মেঝে ব্যবহার করা উচিত নয়।

ঘরের মেঝে শুকনো রাখার জন্য তুষ বা শুকনো কাঠের গুড়া ৫-৭ সেন্টিমিটার পুরু করে বিছিযে দিতে হবে। ব্রয়লার শেডের মেঝে কখনো স্যাতস্যাতে হতে দেওয়া যাবে না।

প্রতিটি ব্রয়লার মুরগির জন্য শীতকালে ০.০৯১ বর্গমিটার এবং গ্রীষ্মকালে ০.০৯৫ বর্গমিটার জায়গা দেওয়া উচিত। ঘরে বাশের মাচা তৈরি করে তার উপর ব্রয়লার মুরগি পালন করা যেতে পারে। বাশের মাচার উপর ব্রয়লার খুব ভালো থাকে এবং লিটার ব্যবস্থাপনার ঝামেলা থাকে না।

ব্রয়লার মুরগির ওজন ভেদে মেঝের প্রয়োজনীয় জায়গা

প্রাপ্ত বয়স্ক ব্রয়লারের ওজন (কেজি/মুরগি)প্রয়োজনীয় জায়গার পরিমান (বর্গমিটার/মুরগি)
১.৩৬০.০৫
১.৮২০.০৬
২.২৭০.০৮
২.৭২০.০৯
৩.১৮০.১১

ব্রয়লার মুরগির ওজন ও মৃত্যুর হারের উপর মেঝের বরাদ্দকৃত জায়গার প্রভাব (৪০ দিন বয়সের)

মেঝের জায়গার পরিমান (বর্গমিটার/মুরগি)৪০ দিন বয়সের গড় ওজন (কেজি)মৃত্যুর হার %
০.০৯৩১.৮৮২.০
০.০৮৪১.৮৭২.১
০.০৭৪১.৮৬২.৩
০.০৬৫১.৮৩২.৬
০.০৫৬৮.৮১৩.০
০.০৪৬১.৭৯৩.৬
০.০৩৭১.৭৫৪.৫

ফিড কনভারশনের উপর মেঝের বরাদ্দকৃত জায়গার প্রভাব

মেঝের জায়গার পরিমান (বর্গমিটার/মুরগি)ফিড কনভার্শন রেশিও (এফ.সি.আর)
০.০৯১.৭৩
০.০৮১.৭৪
০.০৭১.৭৫
০.০৬১.৭৯
০.০৫১.৮৪
০.০৪১.৯১
০.০৩১.৯৮

ফিড কনভার্শন রেশিওর মান যতো কম হবে ততোই ভালো।

ফিড কনভার্শন রেশিও বা এফসিআর সম্পর্কে আরো যানতে পড়ুন-

মুরগির এফসিআর (ফিড কনভারশন রেশিও) নির্ণয় পদ্ধতি

ব্রয়লার মুরগির ঘর তৈরি ও আলো-বাতাস চলাচল ব্যবস্থা

আলো ও বাতাস চলাচল ব্যবস্থার প্রধান উদ্দেশ্য হলো ব্রয়লারের ঘরে প্রয়োজনীয় অক্সিজেন সরবরাহ করা, কার্বন ডাই-অক্সাইডের মাত্রা হ্রাস করা, তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করা, ঘর থেকে ধুলাবালি, আর্দ্রতা এবং এমোনিয়া গ্যাস অপসারণ করা ও রোগ জীবাণুর বংশবৃদ্ধি কমানো। যেহেতু ব্রয়লার মুরগি গরম সহ্য করতে পারে না সেহেতু ব্রয়লার মুরগির ঘর তৈরির সময় পর্যাপ্ত আলো ও বাযু চলাচলের ব্যবস্থা রাখতে হবে।

ব্রয়লার মুরগির ঘরে তাপমাত্রার প্রভাব

ব্রয়লারের বয়স ভেদে খাদ্য গ্রহণ, বৃদ্ধি এবং পানি গ্রহণের উপর ব্রয়লার ঘরের তাপমাত্রা বৃদ্ধির ক্ষতিকর প্রভাব।

ব্রয়লারের বয়স (সপ্তাহ)১০.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস
খাদ্য গ্রহণ (কেজি/১০০ দিন/ব্রয়লার)
২১.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস
খাদ্য গ্রহণ (কেজি/১০০ দিন/ব্রয়লার)
৩২.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস
খাদ্য গ্রহণ (কেজি/১০০ দিন/ব্রয়লার)
৩৭.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস
খাদ্য গ্রহণ (কেজি/১০০ দিন/ব্রয়লার)
১.৬৮১.৭৮১.৬৪১.৫৯
৪.৫৪৪.১৪৪.০০৩.৯৬
৬.৬৮৬.৫০৬.০৯৭.৬৪
৯.৪১৯.০৫৮.৩৬৮.২৫
১২.০৯১১.৫০১০.১৮৯.৫০
১৫.০০১৪.৩৭১২.৪৬১১.২৩

সপ্তাহ শেষে প্রতিটি ব্রয়লারের গড় ওজন (কেজি)

ব্রয়লারের বয়স (সপ্তাহ)১০.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস
গড় ওজন (কেজি/১০০ দিন/ব্রয়লার)
২১.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস
গড় ওজন (কেজি/১০০ দিন/ব্রয়লার)
৩২.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস
গড় ওজন (কেজি/১০০ দিন/ব্রয়লার)
৩৭.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস
গড় ওজন (কেজি/১০০ দিন/ব্রয়লার)
০.১৫০.১৫০.১৫০.১৪
০.৪১০.৩৯০.৩৭০.৩৫
০.৬৫০.৭০০.৬৫০.৬৩
০.৯৯১.০৬০.৯৭০.৯২

ব্রয়লার মুরগির ঘর তৈরি ও আপেক্ষিক আর্দ্রতা

ব্রয়লার খামারের আপেক্ষিক আর্দ্রতা মুরগির খাদ্য গ্রহণ, বৃদ্ধি ও রোগ ব্যাধির উপর যথেষ্ট প্রভাব বিস্তার করে। ব্রয়লারের ঘরে ৬০% থেকে ৭০% আপেক্ষিক আর্দ্রতা থাকা প্রয়োজন। এ আর্দ্রতায় লিটার শুষ্ক থাকে এবং লিটার তারাতারি স্যাঁতস্যাঁতে হয় না। ভালোভাবে পালক গজায় এবং ব্রয়লারের দৈহিক বৃদ্ধিও ভালো হয়। অধিক আর্দ্রতায় মুরগির রোগ জীবাণুর সংক্রমন বেশি হয়। এসকল বিষয়গুলো ব্রয়লার মুরগির ঘর তৈরি করতে লক্ষ্য রাখতে হবে।

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!