গরুকে ঘাস খাওয়ানোর নিয়ম ও পদ্ধতি

গরুকে ঘাস খাওয়ানোর নিয়ম ও পদ্ধতি

গরুকে ঘাস খাওয়ানোর নিয়ম ও পদ্ধতি সম্পর্কে আমাদের পূর্ণ ধারণা থাকা প্রয়োজন। আমরা গরুর ঘাসের প্রয়োজনীয়তাও অনেক সময় শিকার করতে চাই না। আজকের আলচনায় গরুকে ঘাস খাওয়ানোর নিয়ম ও পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানব।

গরু একটি তৃণ ভোজি প্রাণি। কাঁচা ঘাস গরুর প্রধান ও গুরুত্বপূর্ণ খাদ্য। কাঁচা ঘাস থেকে গরু পানি, হজম যোগ্য ফাইবার, প্রোটিন, কার্বোহায়ড্রেট, ভিটামিন ও মিনারেল পায়। গরুর জন্য বিভিন্ন জাতের ঘাস চাষ করা যেতে পারে। তার মধ্যে অন্যতম হলো-

  1. নেপিয়ার ঘাস
  2. সুপার নেপিয়ার বা পাকচোং ঘাস
  3. জার্মান ঘাস
  4. জাম্বু ঘাস
  5. ইপিল ইপিল
  6. সজিনা পাতা

ইত্যাদি উচ্চ ফলনশীল ও অধীক পুষ্টিকর ঘাস গরুর জন্য চাষ করা যেতে পারে।

গরুকে ঘাস খাওয়ানোর নিয়ম

গরুকে ঘাস খাওয়ানোর সময় যেসকল বিষয় খেয়াল রাখতে হবে-

  1. গরুর মোট খাদ্যের ৬০ ভাগ কাঁচা ঘাস অথবা কাঁচা ঘাস ও খরের মিশ্রণ সরবরাহ করতে হবে।
  2. ছোট গরুর ক্ষেত্রে ঘাসগুলোকে ২ ইন্চি এবং বড় গরুর ক্ষেত্রে ৪ ইন্চি সাইজে কেটে খাওয়ানো উচিত।
  3. দ্রুত বর্ধণশীল ও অধিক নাইট্রোজেন যুক্ত ঘাস কখোনই খাওয়ানো যাবে না।
  4. ঘাস জমি থেকে কেটে আনার পর হালকা রোদে ১ ঘন্টা রেখে তারপর কেটে কেটে গরুকে খাওয়ানো উচিত।
  5. গরু মাটির চার ইন্চি উপর থেকে ছিড়ে ক্ষেতে পছন্দ করে। তাই গরুকে কিছু সময় উন্মুক্ত মাঠে চরানো উচিত।
  6. অথবা গরু যাতে ফ্লোর থেকে খাবার গ্রহন করতে পারে সেই ব্যবস্থা রাখা।
  7. দীর্ঘ সময় পানিতে ভেজা, পচা ও বাসি ঘাস খাওয়ানো থেকে বিরত থাকুন।
  8. ঘাসের জমিতে ইউরিয়া সার প্রয়োগের ১০-১৫ দিন পর ঘাস সংগ্রহ করতে হবে।
  9. প্রতিদিন একটি নির্দিষ্ট মাত্রায় কাঁচা ঘাস খাওয়ান। ঘন ঘন পরিবর্তন বা কম বেশি করা থেকে বিরত থাকুন।

গরুকে ঘাস খাওয়নোর প্রয়োজনীতা ও সুবিধা

গরুকে ঘাস খাওয়ালে গরুর বিভিন্য ভিটামিন ও মিনারেলের চাহিদা পূরণ হয়। একই সাথে উৎপাদন বৃদ্ধি পায়। গরুর শরীর বৃত্তিয় কার্যকারিতা বৃদ্ধি পায়। খাবারের রুচি বজায় থাকে। গাভি গরুর প্রজনন ক্ষমতা ভালো থাকে ও দুধের উৎপাদন বৃদ্ধি পায়। গরুর প্রধান খাবার ঘাস। গরুকে ঘাস না খাওয়ালে গরু থেকে সঠিক মাত্রায় উৎপাদন ও খাদ্য খরচ কমানো সম্ভব হয় না।

পরিশেষে বলতে চাই, গবাদি পশু পালনে ঘাসের কোন বিকল্প নেই। এটি একদিকে কস্ট ইফেক্টটিভ অন্যদিকে ভিটামিন-মিনারেল সহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি উপাদানের সাশ্রয়ী উৎস। আমাদের তাই ভালো জাতের উচ্চ ফলনশীল ঘাসের আবাদ করা উচিত এবং গরুকে ঘাস খাওয়ানোর নিয়ম ও পদ্ধতি যথাযথ ভাবে মেনে চলা উচিত।

ধন্যবাদ প্রিয় পাঠক। কমেন্টে আপনার মতামত প্রকাশ করুন।

আরো পড়ুন; গরুকে পানি খাওয়ানোর সঠিক নিয়ম

Leave a Comment

Your email address will not be published.